মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

ভাষা ও সংস্কৃতি

 

ভাষা ও সংস্কৃতি : অত্র উপজেলার প্রধান ভাষা বাংলা । মাগুরা জেলার  ৪টি উপজেলার মধ্যে অত্র উপজলায় শিক্ষার হার সর্বাধিক । অত্র উপজেলায় প্রধানত: মুসলিম ও হিন্দু  ধর্মাবলম্বী লোকের বসবাস।  ঈদ-উল ফিতর, ঈদ-উল আযহা মুসলমানদের  সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব । হিন্দুদের  সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দূর্গাপূজা, কাত্যায়নী পূজা, শ্রীকৃষ্ণের শুভ জন্মাষ্টমী ইত্যাদি ।যদিও আধুনিকতার  ছোয়া এ উপজেলাবাসীকেও  উদ্বেলিত করেছে তবুও এ উপজেলার হাটে মাঠে ঘাটে  পালাগান, লোকগীতি, ভাটিয়ালী, ভাওয়াইয়া, জারী,সারি গানের আসর বসে থাকে । মাছে ভাতে  বাঙালী । তাই এ উপজেলার প্রধান খাবারমাছ, ভাত, মাংস, ডাল সব্জি ইত্যাদি  ।  নবান্নে  পিঠে, পুলি, পায়েসের ধূম পড়ে । শ্রীপুর উপজেলার লোকজন খুবই অতিথি বৎসল, সহজ- সরল। পুরুষের জন্য লুংগী, ধূতি, পাজামা, পাঞ্জাবীর  পাশাপাশি  রয়েছে নানা আধুনিক  পোশাক  এবং মহিলাদের জন্য  শাড়ি, পেটিকোট,ব্লাউজ, স্যালোয়ার, কামিজ  ইত্যাদি পোশাক পরিধানের  চল দেখা যায় ।

 

সরকারী প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি বেসরকারী অনেক প্রতিষ্ঠানও উপজেলায় ভাষা ও সংস্কৃতি বিকাশে নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছে। সংখ্যায় অতি অল্প হলেও উপজেলায় ভাষা ও সংস্কৃতি বিকাশে তাদের অবদান অনস্বীকার্য।

 

 

যেসব সংস্কৃতি বিষয়ক সংস্থা শ্রীপুর কাজ করছে সেগুলো হলোঃ

    * শ্রীপুর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, শ্রীপুর।
    * উপজেলা শিল্পকলা একাডেমী, শ্রীপুর

    * শ্রীপুর সঙ্গীত নিকেতন

    * তনুশ্রী সঙ্গীত নিকেতন

    * অন্তরঙ্গ সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী

    * কাজলী থিয়েটার

 

এই উপজেলায় ভাষা ও সংস্কৃতির সাথে সম্পৃক্ত কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গের নামঃ

 

   *কবি কাজী কাদের নেওয়াজ

   *কবি ফররুখ আহমেদ

   *ওস্তাদ মুন্সি রইচউদ্দিন

   *কবি যতীন্দ্রনাথ বাগচী

   *মহেশচন্দ্র বিশ্বাস।